সাময়িক প্রসঙ্গ
*** সাপ্তাহিক আরাফাত অবিরাম প্রকাশনার ৬৫তম বর্ষ ১৭-১৮ সংখ্যা প্রকাশিত
শাইখ মুহাম্মাদ হারুন হুসাইন

দা’ওয়াহ ও তাবলীগী মহাসম্মেলন সফল করুন!

আলহামদুলিল্লাহ! বাংলাদেশ জমঈয়তে আহলে হাদীসের দা‘ওয়াহ ও তাবলীগে মহাসম্মেলন ২০২৪ আসন্ন। আগামী ১৫ ও ১৬ ফেব্রুয়ারি বৃহস্পতি ও জুমু‘আহ্বার, ঢাকার অদূরে আশুলিয়া থানার বাইপাইলস্থ জমঈয়ত ক্যাম্পাসে এ মহাসম্মেলন যথারীতি অনুষ্ঠিত হবে ইন্শা-আল্লাহ। ইতোমধ্যে পোস্টার, হ্যান্ডবিল, কুপন দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলে পৌঁছে গেছে। এই মহাসম্মেলনকে ঘিরে সর্বস্তরের জমঈয়ত নেতাকর্মীসহ মুসলিম উম্মাহ’র মাঝে বিপুল উৎসাহ-উদ্দীপনা সৃষ্টি হয়েছে। সকলেই অপেক্ষার প্রহর গুণছেন, বিশ্বের খ্যাতিমান সালাফী ‘আক্বীদাহ্ ও মানহাযের আলেমগণের নিকট থেকে বিশুদ্ধ দীনের বয়ান শুনে আত্মশুদ্ধি অর্জন করবেন। নবীর দেশ সৌদিআরবসহ মিশর, জর্ডান, পাকিস্তান, ভারত ও নেপাল হতে বরেণ্য উলামা-ই কিরাম এ মহাসম্মেলনে তাশরীফ আনবেন ইন্শা-আল্লাহ।

কেন্দ্রীয় জমঈয়তের শীর্ষ নেতৃবৃন্দ কয়েক দফায় সম্মেলন স্থল পরিদর্শন করেছেন। বিগত বছরগুলোর ত্রুটি-বিচ্যুতিসমূহ পর্যালোচনা করে এবারের মহাসম্মেলকে সুষ্ঠু-সুন্দরভাবে বাস্তবায়নের জন্য বহুমুখী উদ্যোগও নেয়া হয়েছে। আশা করা হচ্ছে এবারের সম্মেলনে বিপুল সংখ্যক মুসল্লি অংশগ্রহণ করবেন।

বাংলাদেশ জমঈয়তে আহলে হাদীস-এর অন্যতম প্রধান কর্মসূচি “আদ-দাওয়াহ্ ওয়াত তাবলীগ। এ কর্মসূচির মূল উদ্দেশ্য শির্ক-বিদআতে নিমজ্জিত উম্মাহকে কুরআন ও সহীহ হাদীসের মর্মমূলে ঐক্যবদ্ধ করা। জমঈয়তের শীর্ষ আলেমগণ বছরব্যাপী দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলে সফর করে এ কর্মসূচিকে চলমান রাখেন। কেন্দ্রীয় মহাসম্মেলন এই চলমান কর্মসূচির সমারোহপূর্ণ প্রতিফলন।

এবারের সম্মেলনে প্রথমত দেশের সর্বস্তরের আহলে হাদীসের প্রতি উদাত্ত আহ্বান হবে- সকলপ্রকার দলাললি, গ্রুপিং, ব্যক্তিকেন্দ্রিক সমর্থক গ্রুপ প্রভৃতি পরিহার করে, হিংসা-বিদ্বেষ ভুলে গিয়ে, লোভ, মোহ, নেতৃত্ব ও আমিত্বকে তুচ্ছজ্ঞান করে পূর্বের ন্যায় আবারও জমঈয়তের প্লাটফর্মে ঐক্যবদ্ধ হয়ে ভ্রাতৃত্ববোধ পুনঃপ্রতিষ্ঠা করা। দ্বিতীয়ত: যে সকল আহলে হাদীস ওলামায়ে কিরাম দল, প্রতিষ্ঠান কিংবা ফাউন্ডেশন কেন্দ্রিক আহলে হাদীস সমাজের মাঝে বিচ্ছিন্নতা সৃষ্টি করে রেখেছেন, তাদের ব্যাপারে উম্মাহকে সতর্ক করা এবং তৃতীয়ত: সকলপ্রকার মাযহাবী সংকীর্ণতার ঊর্ধে- উঠে এক দেশ, এক উম্মাহ গঠনে দৃঢ় সংকল্প গ্রহণ করা। সর্বোপরি দেশের আপামর জনসাধারণ কুরআন ও সহীহ হাদীসের আলোকে সালাফগণের অনুসৃত পথ অনুযায়ী জীবন গড়ার দীক্ষা পেলেই এ মহাসম্মেলন সফল ও সার্থক হবে বলে আমরা মনে করি।

চূড়ান্ত সফলতা মহান আল্লাহর পক্ষ হতে আসবে। তবে আমাদেরকে নিষ্ঠার সাথে কাজ করতে হবে। সময়, শ্রম ও অর্থ দিয়ে মহাসম্মেলনকে সফল করতে প্রাণান্তকর চেষ্টা অব্যাহত রাখতে হবে। আল্লাহ তা‘আলা ইরাশদ করেন, “যদি তোমরা আল্লাহর দ্বীনের ব্যাপারে সাহায্য করো তাহলে তিনি তোমাদেরকে সাহায্য করবেন এবং তোমাদের অবস্থান সুদৃঢ় করবেন।” অতএব মহান আল্লাহর সাহায্য পেতে হলে আমাদের সাধ্য অনুযায়ী সর্বাত্মক প্রচেষ্টা চালিয়ে যেতে হবে।

মহাসম্মেলনকে সুন্দর ও সুশৃংখলভাবে পরিচালনার জন্য অভিজ্ঞ দক্ষ ও নিবেদিতপ্রাণ দায়িত্বশীল সমন্বয় সম্মেলন বাস্তবায়ন কমিটি গঠন করা হয়েছে। বাংলাদেশ জমঈয়তে আহলে হাদীস-এর সিনিয়র সহ-সভাপতি বিশিষ্ট শিল্পপতি ও শিক্ষানুরাগী আমাদের শ্রদ্ধেয় ব্যক্তিত্ব আলহাজ্জ আওলাদ হোসেনকে আহ্বায়ক, সহ-সভাপতিবৃন্দের মধ্যে যথাক্রমে প্রফেসর ডা. দেওয়ান আব্দুর রহীম, প্রফেসর ড. আহমদুল্লাহ ত্রিশালী, অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ রঈসুদ্দীনকে যুগ্ম আহ্বায়ক এবং সেক্রেটারি জেনারেল শাইখ ড. মুহাম্মদ শহীদুল্লাহ খান মাদানীকে সদস্য সচিব করে বাস্তবায়ন কমিটি গঠন করা হয়। কেন্দ্রীয় নির্বাহী পরিষদের অন্যান্য সম্মানিত দায়িত্বশীল সমন্বয়ে একাধিক সাব-কমিটিও গঠন করে সুচারুরূপে কার্যক্রম পরিচালনা করা হচ্ছে।

আমরা সকলেই কম-বেশ অবগত আছি যে, এ ধরনের আন্তর্জাতিক দা’ওয়াহ ও তাবলীগী মহাসম্মেলন বাস্তবায়ন করতে বিপুল পরিমাণ অর্থের প্রয়োজন। আর এর যোগান আমাদেরকেই দিতে হবে। আমরা সাধ্যমত এবং সমাজের দানশীল ভাইদের কাছ থেকে অনুদান সংগ্রহ করে সম্মেলনকে সাফল্যমণ্ডিত করতে নিরলস প্রচেষ্টা অব্যাহত রাখব। বাস্তবায়ন কমিটির বলিষ্ঠ নেতৃত্বে ও আমাদের সকলের সম্মিলিত প্রচেষ্টায় এবারের দা’ওয়াহ ও তাবলীগী মহাসম্মেলন সর্বাত্মক সুন্দর ও সফল হবে ইন্শা-আল্লাহ। মহান আল্লাহর তাওফীক্বই আমাদের একমাত্র সম্বল। 



weeklyarafat


আপনার মন্তব্য

ঢাকায় সূর্যোদয় : 6:26:20 সূর্যাস্ত : 5:58:16

সাপ্তাহিক আরাফাতকে অনুসরণ করুন

@সাপ্তাহিক আরাফাত